top of page

IPO Investment : না জেনে IPO-তে বিনিয়োগ করবেন না, এই ১০ বিষয় জানেন তো ?

অনেক ক্ষেত্রেই এই ভুল করে থাকি আমরা। না বুঝেই কেবল প্রচার দেখে আইপিও-তে (IPO) বিনিয়োগ(Investment) করে দিই। পরে যার ফল ভুগতে হয় আমাদের। লাভের (Profit) থেকে বেশি ক্ষতি (Loss) হয় সেখানে। জেনে নিন, কোনও আইপিওতে (IPO) বিনিয়োগের আগে কী কী বিষয়ে মাথায় রাখা উচিত।




IPO (Initial Public Offerings) হল একগুচ্ছ শেয়ারের সমষ্টি। কোনও কোম্পানি জনসাধারণের থেকে প্রথমবার টাকা তুলতে গেলে এই শেয়ার অফার করে। এটি কোম্পানিকে পাবলিক মার্কেট থেকে মূলধন বাড়াতে বা জনগণের টাকা কোম্পানির কাজে ব্যবহার করতে দেয়।


ভারতে যখন একটি কোম্পানি সবার জন্য শেয়ার নিয়ে আসে, তখন তার শেয়ারগুলি একটি স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত হয়। বম্বে স্টক এক্সচেঞ্জ (বিএসই) বা ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ (এনএসই)-তে এই কোম্পানিগুলির তালিকাভুক্তি বা লিস্টিং হয়ে থাকে।


আইপিও-তে সাবস্ক্রাইব করার আগে এই বিষয়গুলি আপনার জানা উচিত: ১ প্রাথমিক ধারণা আইপিওগুলি কীভাবে কাজ করে তার মূল বিষয়গুলি জানুন, যার মধ্যে একটি কোম্পানি কীভাবে শেয়ার অফার করা হয় এবং কীভাবে বিনিয়োগকারীরা অংশগ্রহণ করতে পারে এগুলি বুঝুন।


IPO এর প্রকারভেদ: 1. ফিক্সড প্রাইস ইস্যু: একটি নির্দিষ্ট মূল্যের অফারে, ইস্যুকারী (কোম্পানি ) একটি নির্দিষ্ট মূল্য নির্ধারণ করে, যেখানে বিনিয়োগকারীরা শেয়ার কিনতে পারেন। এই নির্দিষ্ট মূল্য সাধারণত কোম্পানির আর্থিক কর্মক্ষমতা, শিল্পের প্রবণতা এবং বাজারে আর্থিক অবস্থার মতো বিষয়গুলির মাধ্যমে নির্ধারিত হয়। যে বিনিয়োগকারীরা আইপিওতে অংশগ্রহণ করতে চান তাদের সাবস্ক্রাইব করার জন্য শেয়ার প্রতি নির্দিষ্ট মূল্য দিতে হয়।


2.বুক-বিল্ডিং ইস্যু: এখানে বুক বিল্ডিংয়ের সময় ইস্যুকারী কোম্পানি একটি মূল্যে শেয়ার অফার করে। বিনিয়োগকারীরা সেই পরিসরের মধ্যে শেয়ারের জন্য বিড বা দর হাঁকিয়ে থাকেন। চূড়ান্ত ইস্যু মূল্য তারপর বিডিং প্রক্রিয়া চলাকালীন উত্পন্ন চাহিদার উপর ভিত্তি করে নির্ধারিত হয়।


৩ SEBI-র নিয়ম: ভারতের সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ বোর্ড (SEBI) ভারতে IPO নিয়ন্ত্রণ করে। আইপিও সম্পর্কিত SEBI নির্দেশিকা এবং বিধানগুলি বুঝুন।




৪ ব্যবসার মডেলটি বুঝুন: কোম্পানির কী করে, তার আর্থিক অবস্থা ও ভবিষ্যতের সম্ভাবনাগুলি বিশ্লেষণ করে তবেই আইপিও কিনুন। ৫ বরাদ্দ প্রক্রিয়া: আইপিওতে কীভাবে শেয়ার বরাদ্দ করা হয় তা বুঝুন। বরাদ্দ প্রক্রিয়াটি ওভারসাবস্ক্রাইব করা যেতে পারে, যার ফলে আনুপাতিক বরাদ্দ হয়। আপনাকে কতটি শেয়ার বরাদ্দ করা হয়েছে তা জানতে বরাদ্দের ভিত্তিতে পরীক্ষা করুন।


৬ গ্রে মার্কেট প্রিমিয়াম: গ্রে মার্কেট হল একটি অনানুষ্ঠানিক বাজার যেখানে অফিসিয়াল তালিকাভুক্তির আগে আইপিও শেয়ার লেনদেন করা হয়। গ্রে মার্কেট প্রিমিয়াম প্রত্যাশিত তালিকা মূল্য নির্দেশ করে। মনে রাখবেন এই তথ্য সবসময় সঠিক নাও হতে পারে। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে গ্রে মার্কেট প্রিমিয়ামের ওপর নির্ভর করে আইপিও অফারের শেষ দিনেও অনেকে কোম্পানিতে বিনিয়োগ করেন।


৬ গ্রে মার্কেট প্রিমিয়াম: গ্রে মার্কেট হল একটি অনানুষ্ঠানিক বাজার যেখানে অফিসিয়াল তালিকাভুক্তির আগে আইপিও শেয়ার লেনদেন করা হয়। গ্রে মার্কেট প্রিমিয়াম প্রত্যাশিত তালিকা মূল্য নির্দেশ করে। মনে রাখবেন এই তথ্য সবসময় সঠিক নাও হতে পারে। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে গ্রে মার্কেট প্রিমিয়ামের ওপর নির্ভর করে আইপিও অফারের শেষ দিনেও অনেকে কোম্পানিতে বিনিয়োগ করেন।


৮ রেড হেরিং প্রসপেক্টাস পর্যালোচনা করুন: এই নথিটি কোম্পানির আর্থিক অবস্থা এবং আইপিও প্রক্রিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দিয়ে থাকে।১০ বাজারের সেন্টিমেন্ট সম্পর্কে সচেতন হোন: IPO প্রায়শই ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে প্রচারের আলোয় আসে। ফলে সাময়িক মূল্যবৃদ্ধির সম্মুখীন হয়। সেই ক্ষেত্রে অতিরিক্ত টাকা দেওয়ার আগে সতর্ক হোন।




Comments


bottom of page