top of page

৩০ বছর বয়সীদের জন্য সুপারহিট SIP প্ল্যান; ৩০০০ টাকা বিনিয়োগে পেয়ে যাবেন ৪.৫০ কোটি টাকা

যত তাড়াতাড়ি বিনিয়োগ শুরু করা যায়, ততই ভাল। কিন্তু, এটা কোনও নিয়ম নয়। বিনিয়োগে দেরি হলেও কৌশল ঠিক থাকলে অর্থ উপার্জন হবেই। কারণ SIP ৩০ বছরের বেশি বয়সীদের জন্যও সেরা। এখানে বড় বিনিয়োগের প্রয়োজন নেই। প্রতিদিন ১০০ টাকা সঞ্চয় করতে হবে।


ইক্যুইটি মিউচুয়াল ফান্ডে প্রতি মাসে ৩০০০ টাকা বিনিয়োগ করে ৩০ বছরের জন্য রেখে দিতে হবে। এটি দিয়ে অবসর পরিকল্পনাও করা হবে। ৩০ বছর পর নিজেদের কাছে ৪.১৭ কোটি টাকা থাকবে। এরপর রিটার্ন এত বড় হবে যে, শুধুমাত্র সুদ থেকে ৩.৫৮ কোটি টাকা লাভ হবে।


কেউ যদি অর্থ উপার্জন করতে চান, তবে দীর্ঘমেয়াদী কৌশল সবচেয়ে ভাল কাজ করে। নিজেদের আয় থেকে প্রয়োজনীয় খরচগুলি সরাতে হবে এবং তারপরে দৈনিক মাত্র ১০০ টাকা সঞ্চয় করতে হবে। এই সঞ্চয় প্রতি মাসে বিনিয়োগ করতে হবে। পদ্ধতিগত বিনিয়োগ পরিকল্পনা নিজেদের অর্থকে সঠিক দিকনির্দেশনা দেবে এবং রিটার্ন সেই অর্থকে বাড়িয়ে তুলবে।


ইক্যুইটি মিউচুয়াল ফান্ড একটি ভাল বিকল্প -বিনিয়োগ উপদেষ্টার মতে, কেউ যদি একটি বড় তহবিল চান তবে ইক্যুইটি মিউচুয়াল ফান্ড একটি ভাল বিকল্প হতে পারে। যদি একজন বিনিয়োগকারী ৩০ বছর বয়সে ৩০০০ টাকা বিনিয়োগ করেন এবং ৩০ বছর ধরে নিয়মিত বিনিয়োগ করে যান, তাহলে একটি বড় তহবিল তৈরি হবে। ইক্যুইটি মিউচুয়াল ফান্ডের সিস্টেমেটিক ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যানে বিনিয়োগ করা উপকারী।


চক্রবৃদ্ধির একটি বড় সুবিধা আছে -কেউ যদি ৩০ বছরের জন্য মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করেন এবং আনুমানিক ১৫% রিটার্ন পান, তাহলে কোটিপতি হওয়ার পথ সহজ হয়ে যায়। সবচেয়ে বড় সুবিধা হল এর চক্রবৃদ্ধি। এর অর্থ হল ৩০ বছরে ১৫% সহ চক্রবৃদ্ধি সুদের সুবিধা পাওয়া যাবে। কিন্তু, যেটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ তা হল সবচেয়ে সঠিক সূত্র, যা এসআইপিতে মান যোগ করবে। এই সূত্রটি স্টেপ আপ SIP-র। এর জন্য যা করতে হবে তা হল প্রতি বছর ১০% স্টেপ-আপ রেট বজায় রাখা।


১০% ধাপে ধাপে ৪.৫০ কোটি টাকার কর্পাস তৈরি হবে -যদি কারও বয়স ৩০ বছর হয়, তাহলে দৈনিক ১০০ টাকা সঞ্চয় করে SIP-তে বিনিয়োগ করতে হবে। এর দীর্ঘমেয়াদী কৌশল ৩০ বছরের লক্ষ্য। এরপর প্রতি বছর ১০% স্টেপ-আপ করতে হবে। কেউ যদি ৩০০০ টাকা দিয়ে শুরু করেন, তাহলে পরের বছর তাঁকে ৩০০ টাকা বাড়াতে হবে।

৩০ বছর পর সেই মেয়াদ হবে ৪,৫০,৬৬,৮০৯ টাকা। SIP ক্যালকুলেটর অনুসারে, ৩০ বছরে সেই মোট বিনিয়োগ হবে ৫৯,২১,৭৮৫ টাকা। তবে এখানে শুধু রিটার্ন থেকে লাভ হবে ৩ কোটি ৯১ লাখ ৪৫ হাজার ২৫ টাকা। এইভাবে, সবচেয়ে সঠিক ফর্মুলা স্টেপ-আপের সাহায্যে, ৪ কোটি ৫০ লাখ টাকার বিশাল তহবিল থাকবে।

Comments


bottom of page