top of page

PM Vishwakarma Yojana: ১৫ হাজার টাকা ছাড়াও ২ লক্ষ টাকার ঋণ দেবে মোদি সরকার, কারা পাবেন ?

দেশের বিশ্বকর্মাদের সাহায্য করতে এগিয়ে এসেছে সরকার। ১৮টি পেশার সঙ্গে যুক্ত শ্রমিকদের পিএম বিশ্বকর্মা প্রকল্পের সুবিধা দেওয়া হবে। পিএম বিশ্বকর্মা প্রকল্পে ১৩ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করা হচ্ছে।

'বিশ্বকর্মা' এই 18টি ব্যবসায় উপকৃত হবে

1. কাঠমিস্ত্রি (সুদার)

2. নৌকা নির্মাতা

3. অস্ত্র প্রস্তুতকারক

4. কামার

5. হাতুড়ি এবং টুলকিট মেকার

6. তালা প্রস্তুতকারক

7. স্বর্ণকার

8. কুমার

9. ভাস্কর, স্টোন ব্রেকার

10.মোচি

11. ম্যাসন

12. ঝুড়ি, মাদুর এবং ঝাড়ু তাঁতি

13. ঐতিহ্যবাহী খেলনা নির্মাতারা

14. নাপিত

15. মালা

16. ধোপা

17. দর্জি

18. ফিশ নেট মেকার




এই প্রকল্পে ট্রেনিং চলাকালীন প্রতি দিন ৫০০ টাকা অনুদান পাবেন শিল্পী -কারিগররা। যন্ত্রপাতি কেনার জন্য ১৫ হাজার টাকার ভাউচার দেওয়া হবে'। জেনে নিন, কী এই বিশ্বকর্মা যোজনা। এতে কারা উপকৃত হবেন ?


সমাজের শিল্পী ও কারিগরদের জন্য নতুন যোজনা নিয়ে এল সরকার। আগেই এই PM Vishwakarma Yojana-র ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী (PM Modi) । নতুন এই যোজনা অনুযায়ী ২ লাখ টাকা ঋণের পাশাপাশি শিল্পীদের ১৫,০০০ টাকা দেবে মোদি সরকার (Narendra Modi)।


কী সুবিধা পাওয়া যাবে এই স্কিমে PM বিশ্বকর্মা যোজনার অধীনে সমস্ত শিল্পী ও কারিগরদের নিম্নলিখিত সুবিধাগুলি দেওয়া হবে: প্রথম পর্যায়ে ১ ,০০,০০০ টাকা পর্যন্ত ঋণ - ৫ শতাংশ হারে সুদ। দ্বিতীয় পর্বে ২,০০,০০০ টাকা পর্যন্ত ঋণ দেওয়া হবে। ৫ শতাংশ হারে সুদ দেবে সরকার।


স্কিল ট্রেনিংও দেওয়া হবে। বৃত্তি হিসাবে প্রশিক্ষণের সময় প্রতিদিন ৫০০ টাকা দেওয়া হবে। অগ্রিম টুল কিট কেনার জন্য ১৫,০০০ টাকা দেওয়া হবে শিল্পীদের। প্রধানমন্ত্রী বিশ্বকর্মা শংসাপত্র এবং পরিচয়পত্রও দেওয়া হবে।


১ম ধাপের ঋণের মেয়াদ ১৮ মাস। 2য় পর্বের ঋণের মেয়াদ ৩০ মাস। টাকা ফেরতের ক্ষেত্রে প্রতি ডিজিটাল লেনদেনে ১ টাকা করে ইনসেনটিভ দেবে সরকার।


এতে কারা লাভবান হবেন ? কেন্দ্রীয় সরকারের এই প্রকল্পের অধীনে মাছের জাল প্রস্তুতকারক। দর্জি। ধোপা। মালা প্রস্তুতকারক নাপিত। পুতুল এবং খেলনা প্রস্তুতকারক (প্রচলিত) ঝুড়ি/ মাদুর প্রস্তুতকারক রাজমিস্ত্রি


এই তালিকায় রয়েছে - মুচি (চর্মকার)/ জুতোর কারিগর। ভাস্কর (মূর্তিকার, স্টোন কার্ভার), কুমার। স্বর্ণকার। হাতুড়ি এবং টুল কিট প্রস্তুতকারক। কামার। নৌকা নির্মাতা। কাঠমিস্ত্রি


প্রধানমন্ত্রী বিশ্বকর্মা যোজনার আওতায় প্রথম ধাপে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ দেওয়া হবে। এর সুদের হার হবে সর্বোচ্চ ৫ শতাংশ। এর পরে, দ্বিতীয় পর্যায়ে, যোগ্য কর্মীদের প্রত্যেককে ২ লক্ষ টাকা ছাড় দেওয়া হবে। এছাড়া এই কারিগর ও কারিগরদের প্রধানমন্ত্রী বিশ্বকর্মা সার্টিফিকেট ও পরিচয়পত্রও দেওয়া হবে। আধুনিক যন্ত্রপাতি কেনার জন্য ১৫,০০০ টাকা সহায়তাও দেওয়া হবে।


শ্রমিকদের জন্য সরকার এই প্রকল্পের অধীনে পাঁচ বছরের (FY24-28) মেয়াদের জন্য ১৩,০০০ কোটি টাকা অনুমোদন করেছে। এই প্রকল্পের অধীনে সর্বনিম্ন বয়স রাখা হয়েছে ১৮ বছর। পরিবারের মাত্র একজন সদস্য এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন। আবেদনকারীদের একটি স্ব-ঘোষণা ফর্মও দিতে হবে।

Comentarios


bottom of page