top of page

অবসরের পরে জমানো টাকায় কর বাঁচাবেন কী ভাবে?

অবসর জীবনের জন্য টাকা জমানোর কথা ভাবলেই কপালে চিন্তার ভাঁজ। এ নিয়ে নানা রকমের পরিকল্পনা মাথায় ভিড় করে। অবসরের জন্য সঞ্চয় মানেই সুরক্ষিত ও কম ঝুঁকির প্রকল্প বেছে নেওয়া। সরকারি বেশ কিছু প্রকল্প রয়েছে, যার মাধ্যমে আপনি ভাল মানের রিটার্ন আশা করতে পারেন। এর অন্তর্ভুক্ত বৃদ্ধ ও অতি-বৃদ্ধ, সমস্ত নাগরিকেরই উপযোগী প্রকল্প। তেমনই কয়েকটির হদিস এক নজরে দেখে নিন এই প্রতিবেদনে।




১। সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম


স্বল্প সঞ্চয়ের মধ্যে বিনিয়োগ করতে চাইলে বয়স্ক নাগরিকদের জন্য এই প্রকল্পটি সব থেকে ভাল। যেমন নিয়মিত ভাল সুদ পাবেন, তেমনই দরকার মতো একটু বেশি অঙ্কের টাকা বিনিয়োগ করে রাখলে বছরে ৮.২ শতাংশ সুদ পাবেন। পোস্ট অফিসের মাধ্যমে খুব সহজে বিনিয়োগ করা যায় এই প্রকল্পে। সর্বনিম্ন ১০০০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৩০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আপনি অনায়াসে জমাতে পারবেন ৫ বছরের ‘লক ইন’-সংবলিত এই প্রকল্পে।


২। ন্যাশনাল পেনশন স্কিম


২০০৪ সাল থেকে পুরনো পেনশন স্কিমের বদলে বাজারে ছেয়ে গিয়েছে এই স্কিম। ১৮-৭০ বছর বয়সী যে কোনও ভারতীয় নাগরিক এই স্কিমে অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। অবসরপ্রাপ্ত ও অবসর-পূর্ব সব নাগরিক এই অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে করমুক্ত বড় অঙ্কের টাকা তুলতে পারবেন অবসরের পরে।


৩। ট্যাক্স সেভার এফডি


বয়স্ক নাগরিকদের জন্য খুব ভাল অঙ্কের সুদে ফিক্সড ডিপোজিটের সুযোগ দেয় ব্যাঙ্ক, পোস্ট অফিস বা সমবায় ব্যাঙ্ক ইত্যাদি। কমবয়সী বা মধ্যবয়সী নাগরিকদের তুলনায় বয়স্ক নাগরিকদের জন্য সুদের হারও যেমন উঁচু, তেমনই কর বাঁচানোর দারুণ পথও রয়েছে ইউ/এস ৮০সি-এর মাধ্যমে। এই এফডি-ও ৫ বছরের লক-ইন ব্যবস্থার মধ্যেই থাকে আর সাধারণ সুদের হারের চেয়ে অন্তত ০.২৫% থেকে ০.৭৫% সুদ বেশি থাকে।


৪। অটল পেনশন যোজনা


এই পেনশন প্রকল্পে ১০০০ টাকা থেকে ৫০০০ টাকার স্থায়ী পেনশন পাবেন ৬০ ছুঁয়ে ফেলা নাগরিকেরা। এই প্রকল্পে ৫ ধরনের প্ল্যান পাওয়া যাবে- ১০০০ টাকা, ২০০০ টাকা, ৩০০০ টাকা, ৪০০০ টাকা এবং ৫০০০ টাকা, যা ভারত সরকার নিশ্চিত করছে ষাটোর্ধ্ব নাগরিকদের জন্য।


৫। প্রধানমন্ত্রী বয়োবন্দনা যোজনা


এলআইসি-র প্রধানমন্ত্রী বয়ো বন্দনা যোজনা বয়স্ক নাগরিকদের জন্য একটি পেনশন প্রকল্প। এতে আপনি ১০ বছর পর্যন্ত পেনশন পেয়ে যাবেন। সবচেয়ে কম পেনশন মাসিক ১০০০ টাকা, ষাণ্মাসিক ৩০০০ টাকা, ছয় মাসের ৬০০০ টাকা এবং এক বছরের জন্য ১২০০০ টাকা অবধি পাবেন।


৬। পাব্লিক প্রভিডেন্ট ফান্ড


কম ঝুঁকিতে সব থেকে ভাল রিটার্নের জন্য ভাল সুদের হারে এই প্রকল্প সবচেয়ে জনপ্রিয়। পিপিএফ-এর মাধ্যমে আপনি প্রতি বছরের ৭.১০% সুদের হার পাবেন, প্রতি তিন মাসে সুদের হার বদলে যায়। শুধু তাই নয়, কর বাঁচিয়েও বেশি সুদে টাকা পাওয়ার ক্ষেত্রে ৬০ বছরের পরে আপনার জন্য খুব ভাল এই প্রকল্প।


বিশেষজ্ঞদের কাছে সমাধান খুঁজতে সঞ্চয় নিয়ে আমাদের প্রশ্ন পাঠান — sindhukcom@gmail.com এই ঠিকানায় বা হোয়াটস অ্যাপ করুন এই নম্বরে — 9832773806 আপনার আয়, খরচ এবং সঞ্চয় জানাতে ভুলবেন না। পরিচয় গোপন রাখতে চাইলে অবশ্যই জানান।

Comentarios


bottom of page