top of page

এই স্টক থাকলে খারাপ খবর ! শেয়ারের ট্রেডিং নিষিদ্ধ করল বিএসই-এনএসই, আটকে গেল ৫.৭ লক্ষ বিনিয়োগকারীর টাকা

অনেকদিন ধরেই এই কোম্পানির স্টক ঘিরে বাজারে (Stock Market) একটা নেচিবাচক পরিবেশ তৈরি হয়েছিল। কোম্পানির স্টক অযৌক্তিকভাবে বৃদ্ধির কথা বলছেন অনেক বাজার বিশেষজ্ঞরা। এবার সেই আশঙ্কাই সত্যি হল।

কোন কোম্পানির স্টক নিষিদ্ধ করেছে বাজার ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ (এনএসই) এবং বম্বে স্টক এক্সচেঞ্জ (বিএসই) ডিজিটাল মার্কেটিং সলিউশন কোম্পানি ব্রাইটকম গ্রুপের শেয়ার (Brightcom Group) লেনদেন নিষিদ্ধ করেছে। এতে প্রায় ৫ লাখ ৭ হাজার বিনিয়োগকারীর টাকা আটকে আছে। এই সংস্থাটি বাজার নিয়ন্ত্রক সেবি-র নিয়ম লঙ্ঘন করেছিল। SEBI-এর মতে কোম্পানিটি 2014-15 থেকে 5 বছরের জন্য তার ব্যয়কে কমিয়ে ও মুনাফাকে বাড়িয়ে দেখিয়েছে বলে অভিযোগ। এই কারণে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেনের ওপর নিষেধাজ্ঞা ১৪ জুন থেকে কার্যকর হবে। বুধবার কোম্পানিটির শেয়ার দর লোয়ার সার্কিট স্পর্শ করেছে।

কোম্পানির বিরুদ্ধে কী অভিযোগএনএসই বুধবার একটি সার্কুলার জারি করে বলেছে,  আর্থিক ফলাফলে কারসাজির কারণে সেবি-র নির্দেশে এই পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। SEBI কোম্পানির দায়ের করা সেপ্টেম্বর এবং ডিসেম্বর ত্রৈমাসিকের ফলাফল নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে। অতএব 14 জুন, 2024 থেকে ব্রাইটন গ্রুপের স্টকের লেনদেন বন্ধ হয়ে যাবে। যদি কোম্পানি SEBI নিয়ম মেনে চলে, তাহলে তার শেয়ারের লেনদেন আবার শুরু হবে। স্থগিতাদেশের 15 দিন পরে ছয় মাসের জন্য প্রতি সপ্তাহের প্রথম ব্যবসায়িক দিনে কোম্পানির সিকিউরিটিজে ট্রেড করার অনুমতি দেওয়া হবে।

প্রোমোটারদের শেয়ারহোল্ডিং ও সিকিউরিটিজও বাজেয়াপ্ত করা হবেবিএসই-এর মতে, প্রোমোটারদের সম্পূর্ণ শেয়ারহোল্ডিং এবং ডিম্যাট অ্যাকাউন্টে থাকা অন্যান্য সমস্ত সিকিউরিটিগুলিও বাজেয়াপ্ত করা হবে। বর্তমানে, ব্রাইটন গ্রুপের প্রোমোটারদের 18.38 শতাংশ শেয়ার রয়েছে এবং 81.62 শতাংশ শেয়ার রয়েছে জনসাধারণের কাছে। প্রায় 5.7 লাখ খুচরো বিনিয়োগকারী এই সঙ্কটে আটকা পড়া কোম্পানির 37.89 শতাংশ শেয়ার ধারণ করে। জায়ান্ট কোম্পানি ভ্যানগার্ডেরও এতে অংশীদারিত্ব রয়েছে। এছাড়াও, এফপিআই এলজিওএফ গ্লোবাল অপচুনিটি ফান্ডের 2.48 শতাংশ শেয়ার রয়েছে, অভিজ্ঞ বিনিয়োগকারী শঙ্কর শর্মার 1.14 শতাংশ এবং সুব্রত সাহার 2.02 শতাংশ শেয়ার রয়েছে এই কোম্পানিতে।

BSE-NSE-তে ব্রাইটন গ্রুপের স্টক লোয়ার সার্কিট হিট


গত ২ বছর ধরে হায়দরাবাদের এই কোম্পানির ওপর নজর রাখছিল সেবি। তথ্য গোপনের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে। SEBI বলেছে যে সংস্থাটি আর্থিক ফলাফলের কারসাজি করে জালিয়াতি করছে। কোম্পানি প্রায় 1280 কোটি টাকার তথ্য গোপন করেছে। বুধবার, BSE এবং NSE-তে ব্রাইটকম গ্রুপের স্টক লোয়ার সার্কিট স্পর্শ করেছিল।


( মনে রাখবেন : এখানে প্রদত্ত তথ্য শুধুমাত্র তথ্যের উদ্দেশ্যে দেওয়া হয়েছে। এখানে উল্লেখ করা জরুরি যে, বাজারে বিনিয়োগ করা ঝুঁকি সাপেক্ষ। বিনিয়োগকারী হিসাবে অর্থ বিনিয়োগ করার আগে সর্বদা একজন বিশেষজ্ঞের সঙ্গে পরামর্শ করুন। SINDHUK কখনও কাউকে এখানে অর্থ বিনিয়োগ করার পরামর্শ দেয় না। এখানে কেবল শিক্ষার উদ্দেশ্যে এই শেয়ার মার্কেট সম্পর্কিত খবর দেওয়া হয়। কোনও শেয়ার সম্পর্কে আমরা কল বা টিপ দিই না। )

Comments


bottom of page